অগ্রবর্তী সময়ের ককপিট
ক্রিকেট খেলা সর্বশেষ

‘রোহিতের নেতৃত্ব দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে’

ঘরের মাঠে বিশ্বকাপে সমর্থকদের প্রত্যাশার চাপ সামলে দুরন্ত গতিতে ছুটছে ভারত। টুর্নামেন্টে তারা এখন পর্যন্ত একমাত্র অপরাজিত দল। সবার আগে সেমিফাইনালও নিশ্চিত করেছে স্বাগতিকেরা। আগামী বুধবার মুম্বাইয়ে প্রথম সেমিফাইনালে তাদের প্রতিপক্ষ নিউজিল্যান্ড।

এর আগে আরেকবার গা গরমের সুযোগ পাচ্ছে ভারত। বেঙ্গালুরুতে আজ নেদারল্যান্ডসের মুখোমুখি হবে রোহিত শর্মার দল। শীর্ষে থেকে শেষ চারে উঠে যাওয়ায় আজকের ম্যাচটি রোহিত–কোহলিদের জন্য নিয়মরক্ষার। কাল ম্যাচ–পূর্ব সংবাদ সম্মেলনে আসা ভারতীয় কোচ রাহুল দ্রাবিড়কে তাই প্রতিপক্ষ ডাচদের চেয়ে নিজেদের সাফল্য নিয়েই বেশি প্রশ্ন করা হয়েছে।

এবারের বিশ্বকাপে ভারতের একচেটিয়া আধিপত্যে যে জিনিসটি সবার নজরে এসেছে, তা হলো রোহিত শর্মার অধিনায়কত্ব। ঠান্ডা মাথায় সব চাপ সামলে দলকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়ে যাচ্ছেন রোহিত। তাঁর অধিনায়কত্বে মুগ্ধ কোচ দ্রাবিড় বলেছেন, ‘সন্দেহ নেই, রোহিত নেতা হিসেবে অসাধারণ। মাঠ ও মাঠের বাইরে ওর নেতৃত্ব দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে।’

শুধু নেতৃত্বই নয়, উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান হিসেবেও রোহিত ধারাবাহিক পারফর্ম করে যাচ্ছেন। ৮ ম্যাচে ৫৫.২৫ গড়ে করেছেন ৪৪২ রান। এর চেয়েও বড় ব্যাপার হলো তাঁর স্ট্রাইক রেট। ১২২ স্ট্রাইক রেটে রান করা রোহিত প্রায় প্রতিটি ম্যাচেই দলকে উড়ন্ত শুরু এনে দিয়েছেন, যা পরের ব্যাটসম্যানদের ওপর থেকে দ্রুত রান তোলার চাপ অনেকটাই কমিয়ে দিচ্ছে।

পাকিস্তানের সাবেক অলরাউন্ডার আবদুল রাজ্জাক কদিন আগেই একটি টিভি চ্যানেলে রোহিতের আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়ের প্রশংসা করে বাবর আজমকে অনুসরণ করার পরামর্শ দিয়েছেন। ভারতের কোচ দ্রাবিড়ও রোহিতের ব্যাটিংয়ের গুণকীর্তন করেছেন, ‘কয়েকটি ম্যাচে সে শুরুটা যেভাবে করেছে, তাতেই ম্যাচ আমাদের কবজায় চলে এসেছে। আমি নির্দিষ্ট করে কোনো ম্যাচের কথা বলব না। তবে আমি নিশ্চিত আপনারাও (সাংবাদিকেরাও) এর সঙ্গে একমত হবেন যে (রোহিত আক্রমণাত্মক ব্যাটিং না করলে) কিছু ম্যাচ আমাদের জন্য কঠিন হতে পারত। কিন্তু ওর সুবাদে সহজ হয়ে গেছে।’

রোহিত বাকি অধিনায়কদের চেয়ে কোথায় এগিয়ে, সে ব্যাখ্যাও দিয়েছেন দ্রাবিড়, ‘অনেক দিন ধরেই রোহিত খুব ভালো অধিনায়কত্ব করছে। ও এমন একজন অধিনায়ক, যে কোচ ও সাপোর্ট স্টাফদের সম্মান করে। দলের বাকিরাও ওকে সেই সম্মান দেয়। ওর পরিকল্পনা একদম স্বচ্ছ। ম্যাচের পরিস্থিতি অনুযায়ী পরিকল্পনা বদলাতে পারে। এ কারণেই ও বাকিদের চেয়ে সফল।’

সম্পর্কিত খবর

দক্ষিন কোরিয়ার কাছে ৩-২ গোলে পরাজিত বাংলাদেশ

gmtnews

কপিরাইটের মেয়াদ ৬০ বছর করে সংসদে বিল পাস

Zayed Nahin

প্রধানমন্ত্রীর প্রণোদনায় স্বজনপ্রীতি নয়: সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী

News Editor

মন্তব্য করুণ

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন, তবে আপনি ইচ্ছা করলেই অপ্ট আউট করতে পারেন। স্বীকার করুন বিস্তারিত