অগ্রবর্তী সময়ের ককপিট
বাংলাদেশ রাজনীতি সর্বশেষ

আওয়ামী লীগই দুর্গত মানুষের পাশে থাকে, বিএনপি থাকে না: তথ্যমন্ত্রী

 

তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেছেন, আওয়ামী লীগ সব সময় দুর্গত মানুষের পাশে থাকে, বিএনপি থাকে না। বরং বিএনপি মানুষের মৃত্যু, দুর্যোগ নিয়ে উপহাস করে।

আজ রোববার বিকেলে পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলার মাড়েয়া বামনহাট ইউনিয়ন পরিষদ মিলনায়তনে ত্রাণ বিতরণ অনুষ্ঠানে হাছান মাহমুদ এ কথা বলেন। গত ২৫ সেপ্টেম্বর করতোয়া নদীতে নৌকাডুবিতে নিহত ও ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তিদের পরিবারের মধ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে এই ত্রাণ ও আর্থিক সহায়তা বিতরণ করা হয়। তথ্য মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়। হাছান মাহমুদ বলেন, ‘আজ দল হিসেবে আমরা আপনাদের কাছে এসেছি। কিন্তু দেশে একটি বিরোধী দল আছে, রাজপথের বিরোধী দল। মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বাড়ি উত্তরবঙ্গে। পাশের জেলা ঠাকুরগাঁওয়ে, আসতে যেতে লাগে এক বা দেড় ঘণ্টা। কিন্তু তিনি এখনো আসেননি। আমরা যাওয়ার পর উনি আসবেন আমি জানি। কারণ, আওয়ামী লীগ চলে এসেছে, বিএনপিকে তো আসতে হবে। উনি না এসে ঢাকায় বসে নানা ধরনের কথা বলেছেন।’  তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আওয়ামী লীগ শুধু কথা বলে না, মানুষের পাশে থাকে ও পাশে দাঁড়ায়। সেই কারণেই আমরা এসেছি, আমাদের দলের নেতারা ঝাঁপিয়ে পড়েছেন। এখানে বিএনপির নেতা–কর্মীরা ঝাঁপিয়ে পড়া দূরে থাক, তাঁদের দেখাও যায়নি।’

হাছান মাহমুদ বলেন, নৌকাডুবির খবর শুনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিদেশে গুরুত্বপূর্ণ সফরে থেকেও রেলমন্ত্রী, ত্রাণমন্ত্রী ও ধর্মমন্ত্রীকে ফোন করেছেন, দলকে নির্দেশনা দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রীর ফোন পেয়ে তাৎক্ষণিকভাবে সবাই ছুটে এসেছেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, নিহত প্রত্যেক ব্যক্তির ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে জেলা প্রশাসন থেকে ২০ হাজার, ধর্ম মন্ত্রণালয় থেকে ২৫ হাজার, দুর্যোগ ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় থেকে ৫০ হাজার টাকা দেওয়া হয়েছে। রেলমন্ত্রী প্রতি পরিবারকে পাঁচ হাজার ও রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির পক্ষ থেকে পাঁচ হাজার করে টাকা দেওয়া হয়েছে। নিহত ও ক্ষতিগ্রস্ত প্রতিটি পরিবারকে প্রকৃতপক্ষে এক লাখ পাঁচ হাজার টাকা দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া আওয়ামী লীগ সভাপতির পক্ষ থেকে দলের কেন্দ্রীয় কমিটি প্রত্যেক নিহত ও ক্ষতিগ্রস্তের পরিবারকে ৫০ হাজার টাকা করে দিয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

নৌকাডুবিতে নিহত ব্যক্তিদের বিদেহী আত্মার শান্তি ও তাঁদের শোকসন্তপ্ত পরিবারের শোক কাটিয়ে উঠতে সৃষ্টিকর্তার কাছে প্রার্থনা করেন তথ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘এই ঘটনার পরপর আমাদের দলের স্থানীয় সর্বস্তরের নেতা–কর্মীরা উদ্ধারকাজে ঝাঁপিয়ে পড়েছিলেন। পুলিশ বাহিনী, উপজেলা প্রশাসন, জেলা প্রশাসন, ফায়ার বিগ্রেড ও ডুবুরিরা ঝাঁপিয়ে পড়েছেন। এখনো যে তিনজনকে খুঁজে পাওয়া যায়নি, তাদের খোঁজা হচ্ছে। যারা এই উদ্ধারকাজে অংশগ্রহণ করেছেন, বিশেষ করে ডুবুরিরা। সবাইকে আমি ধন্যবাদ জানাই।’ আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন রেলমন্ত্রী ও পঞ্চগড় জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মো. নূরুল ইসলাম সুজন। স্থানীয় নেতাদের মধ্যে বোদা উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ওয়াহিদুজ্জামান সুজা, সাধারণ সম্পাদক ফারুক আলম; মাড়েয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি আবু আনছার রেজাউল করিম শামীম, সাধারণ সম্পাদক সুশীল বর্মণ; শ্রীশ্রী জন্মাষ্টমী উদ্‌যাপন পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি সুকুমার চৌধুরী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

 

সুত্রঃ প্রথম আলো।

সম্পর্কিত খবর

করোনা নিয়ে হুশিয়ারিঃ নতুন ভেরিএন্ট আরও ভয়াবহ।

gmtnews

অনেক কিছু বলার আছে, কিন্তু এটা ঠিক সময় না কথা বলার: রিয়াদ

Zayed Nahin

টানা বৃষ্টির পরও ঢাকায় আজ সকালের বায়ু অস্বাস্থ্যকর

Zayed Nahin

মন্তব্য করুণ

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন, তবে আপনি ইচ্ছা করলেই অপ্ট আউট করতে পারেন। স্বীকার করুন বিস্তারিত