অগ্রবর্তী সময়ের ককপিট
বিশ্ব সর্বশেষ

ইউক্রেনে অভিযান চালালে রাশিয়াকে মারাত্মক ক্ষতির মুখে পড়তে হবে: বাইডেন

ইউক্রেনে অভিযান চালালে রাশিয়াকে মারাত্মক ক্ষতির মুখে পড়তে হবে: বাইডেন

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এবং রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের মধ্যে শনিবার অনুষ্ঠিত ঝটিকা টেলিফোন কূটনীতি ইউক্রেন নিয়ে উত্তেজনা হ্রাসে ব্যর্থ হয়েছে। জো বাইডেন এ সময় সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, রাশিয়ার সৈন্যরা যদি ইউক্রেনে অভিযান চালায় তাহলে রাশিয়াকে “দ্রুত এবং গুরুতর ক্ষতির” মুখোমুখি হতে হবে।

রাশিয়া ইউক্রেন দখলের পরিকল্পনা করছে পশ্চিমাদের এই দাবির সমালোচনা করে রুশ নেতা বলেন, তিনি “এটিকে উস্কানিমূলক জল্পনা” হিসেবে বিবেচনা করছেন, যা সাবেক সোভিয়েত দেশ ইউক্রেনে সংঘাতের কারণ হতে পারে। ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোর সঙ্গে রাশিয়ান এক ফোনালাপে এ কথা বলা হয়।

পুতিন ও বাইডেনের মধ্যে নতুন করে ফোনালাপের পর ক্রেমলিনের পররাষ্ট্রনীতি বিষয়ক শীর্ষ উপদেষ্টা ইউরি উসাকভ এক টেলিফোন কলে বলেন, “হিস্টিরিয়া চরম পর্যায়ে পৌঁছেছে।”

কয়েক সপ্তাহ ধরে উত্তেজনার কারণে রাশিয়া ১ লাখের বেশী সৈন্য নিয়ে ইউক্রেন ঘিরে রেখেছে, ওয়াশিংটন সতর্ক করে দিয়ে বলেছে, ‘যে কোন দিন’ সর্বাত্মক আক্রমণ শুরু হতে পারে। রাশিয়া কৃষ্ণ সাগর জুড়ে বছরের মধ্যে সব চেয়ে বড় নৌ মহড়া শুরু করেছে।

হোয়াইট হাউস জানায়, বাইডেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্টকে বলেছেন “রাশিয়া যদি ইউক্রেনে অভিযান শুরু করে, তবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র আমাদের মিত্র এবং অংশীদারদের নিয়ে কড়া জবাব দেবে এবং রাশিয়ার ওপর দ্রুত ও গুরুতর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করবে।

যুক্তরাষ্ট্র কূটনৈতিক প্রচেষ্টায় জড়িত থাকার জন্য প্রস্তুত থাকলেও “আমরা অন্যান্য পরিস্থিতির জন্যও সমানভাবে প্রস্তুত” এ কথা উল্লেখ করে বাইডেন বলেন, শীতল যুদ্ধের পর দুই দেশ পূর্ব-পশ্চিম সম্পর্কের সবচেয়ে গুরুতর সংকটের দিকে ধাবিত হচ্ছে।

যুক্তরাষ্ট্রের এক সিনিয়র কর্মকর্তা সাংবাদিকদের বলেছেন, বাইডেন-পুতিন ঘন্টাব্যাপী আলোচনা “পেশাদার এবং বাস্তবসম্মত” ছিল, তবে তারা অগ্রগতির ক্ষেত্রে “কোন মৌলিক পরিবর্তন” আনতে পারেননি।

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রনালয় বলেছে, উত্তর প্রশান্ত মহাসাগরীয় কুরিল দ্বীপপুঞ্জের কাছে তাদের আঞ্চলিক জলসীমায় প্রবেশ করায় একটি মার্কিন সাবমেরিনকে তাড়া করেছে।

এ ঘটনায় রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয় মস্কোয় মার্কিন প্রতিরক্ষা অ্যাটাশেকে তলব করেছে।

তবে মার্কিন ইন্দো-প্যাসেফিক কমান্ড এ অভিযোগ প্রত্যাখান করেছে। কমান্ডের মুখপাত্র ক্যাপ্টেইন কিলি রেইনিস এক বিবৃতিতে বলেছেন, রাশিয়ার ভৌগোলিক জলসীমায় আমাদের অভিযান এ কথা সঠিক নয়।

সম্পর্কিত খবর

ওমিক্রন মোকাবিলায় স্বাস্থ্যখাতের প্রস্তুতি পর্যাপ্ত রয়েছে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

gmtnews

উন্নয়ন কর্মকাণ্ড আগের অবস্থায় নেওয়ার নির্দেশ

gmtnews

আফগান ইস্যুতে আজ বক্তব্য দেবেন জো বাইডেন

News Editor

মন্তব্য করুণ

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন, তবে আপনি ইচ্ছা করলেই অপ্ট আউট করতে পারেন। স্বীকার করুন বিস্তারিত