অগ্রবর্তী সময়ের ককপিট
বিশ্ব সর্বশেষ

ইসরাইলি কমান্ড কোয়ার্টারে হামলা হিজবুল্লাহর

লেবাননভিত্তিক হিজবুল্লাহ গ্রুপ একটি ইসরাইলি কমান্ড কোয়ার্টারে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি করার দাবি করেছে। ইসরাইলও স্বীকার করেছে, ওই হামলায় তাদের বেশ কয়েকজন সৈন্য আহত হয়েছে।

ইসরাইলি ডিফেন্স ফোর্সেস (আইডিএফ) এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, লেবানন থেকে নিক্ষেপ করা গোলায় উত্তর ইসরাইলে তাদের বেশ কয়েকজন সৈন্য আহত হয়েছে।

এতে বলা হয়, উত্তর ইসরাইলের পশ্চিম গ্যালিলিতে সাইরেনের শব্দ শোনা যায়। লেবানন থেকে ইসরাইলি ভূখণ্ডে আসা সন্দেহজনক উড়ন্ত টার্গেটগুলো শনাক্ত করা এবং ইসরাইলি ডিফেন্স ফোর্সের অ্যারিয়াল ডিফেন্স অ্যারে সেগুলোর দুটিকে সফলভাবে আঘাত হানতে সক্ষম হয়।

আইডিএফ জানায়, এতে দুই আইডিএফ সৈন্য মাঝারি মাত্রায় জখম হয়েছে, আরো কয়েকজন সৈন্য হালকা আহত হয়েছে। সৈন্যদের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

এর আগে রোববার হিজবুল্লাহ সামাজিক মাধ্যমে দাবি করে, তারা দক্ষিণ লেবানন থেকে পশ্চিম গ্যালিলিতে অবস্থিত একটি ইসরাইলি কমান্ড হেড কোয়ার্টারে আঘাত হেনেছে। তারা জানায়, গাজা উপত্যকার ফিলিস্তিনি জনগণের প্রতি অটল সমর্থন দিতে এই হামলা চালানো হয়েছে।

গত মাসে লেবানন সীমান্তের কাছাকাছি এলাকা থেকে হাজার হাজার ইসরাইলিকে সরিয়ে নেয়া হয়েছে।

দক্ষিণ লেবাননে ইসরাইলের বিমান হামলা

লেবাননের দক্ষিণাঞ্চলের একাধিক এলাকায় বিমান থেকে হামলা চালিয়েছে ইসরাইলের সামরিক বাহিনী।

রোববার ইসরাইল সীমান্ত লাগোয়া লেবাননের দক্ষিণের ইয়ারুন, রমিশ এবং আইতা আল-শাব গ্রামে এই হামলা চালানো হয়েছে। তবে এতে কোনও হতাহত কিংবা ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে কি না তাৎক্ষণিকভাবে তা জানা যায়নি।

ইসরাইলের বিমান বাহিনী দক্ষিণ লেবাননে ওই হামলা চালিয়েছে বলে লেবাননের গণমাধ্যমের খবরে জানানো হয়েছে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আসা ইসরাইলি বিমান হামলার ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, দক্ষিণ লেবাননে ব্যাপক বিস্ফোরণ ঘটছে।

লেবাননের ইরান-সমর্থিত শক্তিশালী সশস্ত্রগোষ্ঠী হিজবুল্লাহ ইসরাইলে শনিবার অন্তত ১০ বার হামলা চালানো হয়েছে বলে দাবি করার পর ইসরাইলি বাহিনী ওই হামলা চালিয়েছে।

ইসরাইলি সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইসরাইলের খবরে বলা হয়েছে, ইসরাইলের পশ্চিম গ্যালিলি শহরে রকেট এবং ড্রোন হামলার সাইরেন বাজিয়ে বাসিন্দাদের সতর্ক করে দেয়া হয়েছে। এর কিছুক্ষণ পরই দক্ষিণ লেবাননে বোমা হামলা চালিয়েছে ইসরাইলের প্রতিরক্ষা বাহিনী (আইডিএফ)।

গাজায় হামাসের সাথে গত ৭ অক্টোবর ইসরাইলি বাহিনীর যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকে ইসরাইলে হামলা চালিয়ে আসছে হিজবুল্লাহ। এই হামলার জবাবে লেবাননে ড্রোন ও বিমান হামলা চালাচ্ছে ইসরাইলি প্রতিরক্ষা বাহিনী (আইডিএফ)।

জাতিসঙ্ঘের তথ্য অনুযায়ী, গাজায় প্রায় দুই মাস আগে ইসরাইল-হামাস যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত ইসরাইল-লেবাননের সীমান্তে সংঘর্ষে প্রায় ৫০ হাজার মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়েছেন।

ইসরাইলের সাথে সংঘাতে এখন পর্যন্ত হিজবুল্লাহর অন্তত ১০০ জন যোদ্ধা নিহত হয়েছেন। একই সময়ে লেবাননের কয়েকজন বেসামরিক নাগরিকও ইসরায়েলি হামলায় প্রাণ হারিয়েছেন।

সম্পর্কিত খবর

এসইজেড অঞ্চলগুলোতে বিনিয়োগ করতে ফিলিপাইনের প্রতি রাষ্ট্রপতির আহবান

gmtnews

৫৩তম সশস্ত্র বাহিনী দিবস আজ, ঢাকা সেনানিবাসে যান চলাচল সীমিত থাকবে

Zayed Nahin

১৩ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সংসদের অধিবেশন চলবে

Shopnamoy Pronoy

মন্তব্য করুণ

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন, তবে আপনি ইচ্ছা করলেই অপ্ট আউট করতে পারেন। স্বীকার করুন বিস্তারিত