অগ্রবর্তী সময়ের ককপিট
ক্রিকেট খেলা সর্বশেষ

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজে ফিরল ইংল্যান্ড

বিশ্বকাপে নিয়েছেন মাত্র ২ উইকেট। ১৭.২ ওভার বল করে ওভারপ্রতি ইংল্যান্ড অলরাউন্ডার স্যাম কারেন খরচ করেন ৮.০৭। এমন বাজে বিশ্বকাপ কাটিয়ে নতুন শুরুর আশায় পা রেখেছিলেন ক্যারিবিয়ান দ্বীপে। তবে সেখানে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচে ৯.৫ ওভারে দিয়েছিলেন ৯৮ রান, যা ওয়ানডেতে ইংল্যান্ডের সবচেয়ে খরুচে স্পেল।

এরপরও ২৫ বছর বয়সী অলরাউন্ডারের ওপর ভরসা রেখেছিলেন অধিনায়ক জস বাটলার ও কোচ ম্যাথু মট। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে সেই ভরসার প্রতিদানই দিয়েছেন কারেন। ৩৩ রানে ৩ উইকেট নিয়ে হয়েছেন ম্যাচসেরা। ইংল্যান্ডও জিতেছে ৬ উইকেটে।

এই জয়ে ৩ ম্যাচের সিরিজ এখন ১-১ সমতায়। সিরিজ নির্ধারণী তৃতীয় ম্যাচ ৯ ডিসেম্বর, ব্রিজটাউনে। ইংল্যান্ডকে সিরিজে ফেরানোর নায়ক কারেন ম্যাচ শেষে বলেছেন, ‘আগের দিনটা কঠিন ছিল। তবে সেখান থেকে সামনে এগোতে হবে, ঘুরে দাঁড়াতে হবে। প্রথম ম্যাচে আমরা অনেক কিছুই সঠিক করেছিলাম। কোচ আর অধিনায়কের বার্তাও এমন ছিল। আমাদের ফিরে আসতে হবে, কাজগুলো সঠিকভাবে করতে হবে, সেটা আমরা করেছি।’

অ্যান্টিগায় টস হেরে আগে ব্যাট করা ওয়েস্ট ইন্ডিজ তুলেছিল মাত্র ২০২ রান। এই ছোট সংগ্রহ ইংল্যান্ড তাড়া করেছে ৬ উইকেট আর ১০৩ বল হাতে রেখেই। অর্ধশতক করেন ওপেনার উইল জ্যাকস ও অধিনায়ক জস বাটলার। বল হাতে ইংল্যান্ডের হয়ে কারেনের পাশাপাশি ৩ উইকেট নিয়েছেন লিয়াম লিভিংস্টোন। ২ উইকেট করে নিয়েছেন দুই তরুণ বোলার গাস আটকিনসন ও রেহান আহমেদ।

২০৩ রানের জবাবে ফিল সল্ট ও উইল জ্যাকস ৩৫ বলে ৫০ রানের জুটি গড়লে ম্যাচে অনেকটাই এগিয়ে যায় ইংল্যান্ড। ১৫ বলে ২১ রান করে সল্ট আউট হলেও ৭২ বলে ৭৩ রানের ইনিংস খেলেন জ্যাকস। জ্যাক ক্রলি ও বেন ডাকেট রান না পেলেও ইংল্যান্ডের জয়ের জন্য তা বাধা হয়ে দাঁড়ায়নি। হ্যারি ব্রুক ও অধিনায়ক বাটলার ৭৮ বলে ৯০ রানের জুটি গড়েন। ৪৯ রানে অপরাজিত থাকেন ব্রুক। আর অপরাজিত ছিলেন ৪৫ বলে ৫৮ রান করে। এই ইনিংস খেলার পথে ইংল্যান্ডের পঞ্চম ব্যাটসম্যান হিসেবে ওয়ানডেতে ৫০০০ রানের ক্লাবে প্রবেশ করেন বাটলার।

২০২ রান করা ওয়েস্ট ইন্ডিজের সংগ্রহ আরও বড় হতে পারত। কারণ, শুরুটা খারাপ হলেও ঘুরে দাঁড়িয়েছিল তারা। ইংল্যান্ড পেসারদের দাপটে ২৩ রানেরই ৪ উইকেট হারায় শাই হোপের দল। সেখান থেকে অধিনায়ক হোপ শেরফান রাদারফোর্ডকে নিয়ে ১২৯ রানের জুটি গড়েন। তবে এই জুটি ভাঙার পর ধসে পড়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ব্যাটিং লাইনআপ। শেষ ৫০ রানেই ৬ উইকেট হারায় তারা।

৫০০০ রানের কীর্তিতে স্বাভাবিকভাবেই খুশি অধিনায়ক বাটলার। তিনি বলছেন, ‘অত্যন্ত খুশি! অনেক দিন ধরেই খেলছি। একটা লম্বা সময় খেলার পর যখন আপনি মাইলফলক ছোঁবেন, সেটা দারুণ! সম্প্রতি হতাশাজনক সময় কেটেছে।’

সম্পর্কিত খবর

নেইমারের ক্ষিপ্রতায় টানা ষষ্ঠ জয় ব্রাজিলের

News Editor

নিত্যপণ্য কিনতে এক কোটি মানুষকে বিশেষ কার্ড দেয়া হবে: প্রধানমন্ত্রী

gmtnews

ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলে স্কুলে বোমা হামলায় ৬০ জন নিহত: জেলেনস্কি

gmtnews

মন্তব্য করুণ

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন, তবে আপনি ইচ্ছা করলেই অপ্ট আউট করতে পারেন। স্বীকার করুন বিস্তারিত