29 C
Dhaka
June 19, 2024
অগ্রবর্তী সময়ের ককপিট
বাংলাদেশ সর্বশেষ

পদ্মা সেতু আমাদের মর্যাদার প্রতীক, অপমানের প্রতিশোধ: কাদের 

পদ্মা সেতু আমাদের মর্যাদার প্রতীক, অপমানের প্রতিশোধ: কাদের 

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, এই সেতু আমাদের সামর্থ ও সক্ষমতার সেতু। এই সেতু একদিকে সম্মান ও মর্যাদার প্রতীক, অন্যদিকে আমাদের যে অপমান করা হয়েছে তার প্রতিশোধের সেতু। এই সেতুর জন্য শুধু শেখ হাসিনাকে নয় বঙ্গবন্ধুর গোটা পরিবারকে টার্গেট করা হয়েছিল।

তিনি বলেন, পদ্মা সেতু বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার অসীম সাহসের সোনালী ফসল। এখানে অন্যদের কারো অবদান নেই। আমরা শেখ হাসিনার আদেশ পালন করেছি নিষ্ঠার সাথে। বঙ্গবন্ধু কন্যা এই সেতু নির্মাণ করে বিশ্ব জানিয়ে দিয়েছেন, বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ দুর্নীতি করে না।

আগামী ২৫ জুন পদ্মা সেতুর উদ্বোধনের আগে গতকাল রোববার পদ্মা সেতুর মাওয়া ঘাট প্রান্তে এক সংবাদ সম্মেলনে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন। আগামী ২৬ জুন সকাল ৬টা থেকে সেতু দিয়ে গাড়ী চলাচল করবে। পদ্মা সেতুর স্থায়ীত্ব ধরা হয়েছে ১০০ বছর।

সরেজমিনে পদ্মা সেতুর মাওয়া প্রান্তে গিয়ে দেখা যায়, পদ্মার বুকে দাড়িয়ে আছে পুরো সেতু। শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি চলছে জোড়ে সোড়েই। মূল সেতুর লাইট লাগানোর কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে। কিছু কিছু জায়গায় ধোয়া মোছার কাজ চলছে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আমি নিজে সেতুর নামটি শেখ হাসিনা নামে করার প্রস্তাব দিয়েছিলাম। কিন্তু শেখ হাসিনা তা নাকচ করে দিয়ে বলেছেন, এই সেতু নিয়ে আমার পরিবারের সদস্যদের অপমান করা হয়েছে। বঙ্গবন্ধুর কারো নামে এই সেতুর নামকরণ করা হবে না। এই সেতুটি পদ্মা সেতু নামেই হবে। শেখ রেহানাও এ কথাই বলেছেন। শেখ হাসিনা শুধু পরবর্তী নির্বাচন নিয়ে ভাবেন না, তিনি আগামী প্রজন্ম নিয়ে চিন্তা করেন।

ওবায়দুল কাদের তার অফিস কক্ষের একটি ঘটনার বর্ণনা দিয়ে বলেন, আমি মন্ত্রী। আমার রুমে বসে বিশ্বব্যাংকের একজন পাকিস্তানী পরিচালক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবির দিকে তাকিয়ে বলেন, এই মহিলা মোস্ট করাপটেড। এই ধরনের অপমানজনক বক্তব্য তখন তারা দিয়েছে। শেখ রেহানা, জয়, পুতুল, ববিকেও তারা অপমান করেছে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিশ্বব্যাংক পদ্মা সেতু অর্থায়ন থেকে সরে যাওয়ার পর শেখ হাসিনা জাতীয় সংসদে জোড় গলায় বলেছিলেন, আমরা নিজেদের টাকায় পদ্মা সেতু করবো। সেদিন আমাদের আশে পাশে যারা ছিল তারা অনেকেই বিদ্রুপ করেছে। এটা কি সম্ভব? বিশ্বব্যাংক ছাড়া সম্ভব? আমাকে বলেছে-কি মন্ত্রী কি ধরনের পরামর্শ দিচ্ছো, এটা কি হবে? বিশ^ব্যাংক আমাদের মন্ত্রী, উপদেষ্টাসহ যারা সংশ্লিষ্ট ছিলেন তাদের গ্রেফতার করতে চেয়েছিল। আমাদের নেত্রী তখন অনড় ছিলেন। তিনি বলেছেন, আমাদের টাকায় একটা পদ্মা সেতু করতে পারবো না! পারবো। আজকে তার বাস্তব রূপ নিয়েছে। আমরা দেখিয়ে দিয়েছি আমরাও পারি।

তিনি বলেন, যতই সমালোচনা হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কারণে আমাদের মনোবল তততই সুদৃঢ় হয়েছে। কানাডার আদালতে প্রমাণ হয়েছে এখানে কোনো দুর্নীতি হয়নি। বিশ্বব্যাংক আমাদের কাছে ক্ষমা চেয়েছে। যখন তারা ক্ষমা চায় ততদিনে আমাদের সেতুর কাজ শুরু করে দিয়েছি।

পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষ্যে মন্ত্রী বলেন, ২৫ জুন সকাল ১০টায় মাওয়া প্রান্তে কূটনৈতিকসহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার ব্যক্তিবর্গকে নিয়ে সুধী সমাবেশ করা হবে। এখানে পদ্মা সেতুর ফলক উন্মোচন করা হবে। বেলা ১১টার পর শেখ হাসিনা ছয় মিনিটে পদ্মা নদী পারি দিয়ে ওপারে আরেকটি ফলক উন্মোচন করবেন। তারপর কাঠালবাড়ীতে সমাবেশে শেখ হাসিনা দেশবাসীর উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখবেন।

সম্পর্কিত খবর

দক্ষিন কোরিয়ার কাছে ৩-২ গোলে পরাজিত বাংলাদেশ

gmtnews

বার্সেলোনার জয়ে ফেলিক্সের ‘প্রতিশোধ’

Shopnamoy Pronoy

ইসরাইলের ক্ষেপণাস্ত্র হামলা ঠেকিয়ে দিয়েছে সিরিয়া

gmtnews

মন্তব্য করুণ

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন, তবে আপনি ইচ্ছা করলেই অপ্ট আউট করতে পারেন। স্বীকার করুন বিস্তারিত