অগ্রবর্তী সময়ের ককপিট
খেলা ফুটবল সর্বশেষ

বার্সেলোনার জয়ে ফেলিক্সের ‘প্রতিশোধ’

ম্যাচের ২৮ মিনিটে বক্সের মধ্যে ঢুকে কোনা থেকে চিপ শটে বল জালে জড়িয়ে দিলেন জোয়াও ফেলিক্স। আতলেতিকো মাদ্রিদের বিপক্ষে বার্সেলোনা এগিয়ে গেল ১-০ ব্যবধানে। কাল রাতে অলিম্পিক স্টেডিয়ামের লা লিগার ম্যাচটিতে বার্সার জন্য ফেলিক্সের গোলটি ছিল ম্যাচে এগিয়ে যাওয়ার মাধ্যম, শেষ পর্যন্ত যা দলটিকে এনে দিয়েছে ১-০ ব্যবধানের জয়ও।

কিন্তু ২৪ বছর বয়সী পর্তুগিজ ফরোয়ার্ডের জন্য এটি ছিল ‘প্রতিশোধ’। আর তাই উদ্‌যাপনের একপর্যায়ে বিজ্ঞাপনের বোর্ডের ওপর দাঁড়িয়ে দু হাত দুদিকে ছড়িয়ে যেন নিজের শ্রেষ্ঠত্বের জানান দিতে চাইলেন।

ফেলিক্স মূলত আতলেতিকোরই খেলোয়াড়। সর্বশেষ দলবদলে ধারে বার্সেলোনায় এসেছেন। বেশির ভাগ ধারের ক্ষেত্রে বিক্রি হয়ে যাওয়ার অপশন থাকে। কিন্তু ফেলিক্সকে আতলেতিকো পাঠিয়েছে শুধুই এক বছরের ধারে। অর্থাৎ ২০২৪ সালের ৩০ জুনের পর বার্সেলোনা তাঁকে রেখে দিতে চাইলে নতুনভাবে আলোচনা করতে হবে। নয়তো ফেলিক্সকে ফিরতে হবে আতলেতিকোতেই।

তবে চার বছর আতলেতিকোতে কাটিয়ে স্বস্তিতে ছিলেন না ফেলিক্স। ২০১৯ সালে বেনফিকা থেকে আসা এই পর্তুগিজের সঙ্গে আতলেতিকো কোচ দিয়েগো সিমিওনে এবং ক্রীড়া পরিচালক আন্দ্রে বার্তার সম্পর্ক কখনোই ভালো ছিল না। এর সঙ্গে যুক্ত হয়েছিল তাঁর মাঠের খারাপ ফর্ম। গত বছরের শুরুতে আতলেতিকো তাঁকে চেলসিতে ধারে পাঠায়। যদিও প্রিমিয়ার লিগেও ভালো করতে পারেননি। শেষ পর্যন্ত নিজের বেতন কমিয়েই ধারে চলে এসেছেন বার্সেলোনায়।

প্রায় এক বছর আতলেতিকো মাদ্রিদের বাইরে থাকলেও ফেলিক্স তাঁর ‘প্যারেন্ট ক্লাব’টি থেকে নানা অস্বস্তিকর মন্তব্য শুনেছেন। মাঝে বার্সেলোনায় ঘুরে যাওয়া আঁতোয়ান গ্রিজমান যেমন ফেলিক্সের মধ্যে ‘ধারাবাহিকতা’র অভাব বা ‘ক্লান্তির ছাপ’ দেখেন বলে মন্তব্য করেছেন। মিডফিল্ডার সাউল নিগুয়েজ বলেছেন, ফেলিক্সের আরও উন্নতি করতে হবে। এ ছাড়া লা লিগার বার্সা-আতলেতিকো ম্যাচের ম্যাচে কোচ সিমিওনেকে যখন ফেলিক্সকে নিয়ে জিজ্ঞাসা করা হয়, তিনি জবাব দেন ‘সে এখন আমাদের খেলোয়াড় নয়।’ যদিও ফেলিক্সের মূল ক্লাব এখনো আতলেতিকোই।

এ সবের প্রেক্ষিতেই বার্সেলোনা কোচ জাভি হার্নান্দেজকে ম্যাচ-পূর্ব সংবাদ সম্মেলনে ফেলিক্সের সমালোচনা নিয়ে জিজ্ঞেস করা হয়েছিল। তখন বার্সা কোচ বলেছিলেন, এ সব সমালোচনার জবাব দেওয়া উচিত ফেলিক্সেরই, ‘আমি চাই আতলেতিকোর বিপক্ষে এ সব (সমালোচনা) তাঁকে উদ্দীপিত করে তুলুক। সে এখানে খুবই আনন্দে আছে, ধারাবাহিকও। সে যেভাবে এই দলের সঙ্গে নিজেকে মানিয়ে নিয়েছে এবং খেলছে, তাতে আমি খুশি।’

জাভি খুশি হয়েছেন আতলেতিকোর বিপক্ষে ফেলিক্সের গোলেও। ম্যাচশেষে বলেছেন, ‘ফেলিক্স প্রচুর পরিশ্রম করেছে। সে খুব ভালো জায়গায় ছিল, বলও পেয়েছে। ওকে আনন্দিত দেখাচ্ছে। আমি ওকে নিয়ে খুবই সন্তুষ্ট।’

ফেলিক্সের গোলে জয়টি লিগে আতলেতিকোর বিপক্ষে বার্সেলোনার টানা চতুর্থ। ১৫ ম্যাচে ১০ জয় ও ৪ ড্র নিয়ে বার্সেলোনার পয়েন্ট এখন ৩৪। লিগ পয়েন্ট তালিকায় অবস্থান তিনে। ৩৮ পয়েন্ট করে নিয়ে প্রথম ও দ্বিতীয় স্থানে যথাক্রমে রিয়াল মাদ্রিদ ও জিরোনা।

সম্পর্কিত খবর

মুজিব জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে ডেসকোর ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট

gmtnews

নিউজিল্যান্ডে ঐতিহাসিক সিরিজ জয়ে চোখ টাইগারদের 

gmtnews

শীঘ্রই আসতে যাচ্ছে দেশের সর্বপ্রথম ডেডিকেটেড রিসার্চ পোর্টাল

gmtnews

মন্তব্য করুণ

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন, তবে আপনি ইচ্ছা করলেই অপ্ট আউট করতে পারেন। স্বীকার করুন বিস্তারিত