অগ্রবর্তী সময়ের ককপিট
বাংলাদেশ ব্যাবসা ও বানিজ্য সর্বশেষ

ভোজ্যতেল আমদানিতে ভ্যাট কমছে ১০ শতাংশ

ভোজ্যতেল আমদানিতে ভ্যাট কমছে ১০ শতাংশ

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, ভোজ্যতেলের উৎপাদন, আমদানি ও ভোক্তা এ তিন পর্যায়ে ভ্যাট কমানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বর্তমানে ভোজ্যতেলের আমদানি পর্যায়ে ১৫ শতাংশ ভ্যাট রয়েছে, এটি ১০ শতাংশ কমিয়ে ৫ শতাংশ নির্ধারণ করা হবে বলে জানান তিনি।

গতকাল সোমবার বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে বিশ্ব ভোক্তা-অধিকার দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

এসময় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব তপন কান্তি ঘোষ, জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এ এইচ এম সফিকুজ্জামান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, তেলের আমদানি পর্যায়ে ভ্যাট ১৫ থেকে ১০ শতাংশ কমিয়ে ৫ শতাংশ রাখার নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। আগামী দুই’এক দিনের মধ্যে এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে। একইসঙ্গে ভোজ্যতেল উৎপাদন পর্যায়ে ১৫ শতাংশ ভ্যাট ও ভোক্তা পর্যায়ে ৫ শতাংশ ভ্যাট প্রত্যাহার করা হবে বলেও জানান তিনি।

টিপু মুনশি বলেন, সরকার ভোজ্যতেলসহ অন্যান্য নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের সরবরাহ ঠিক রাখবে। এ জন্য কঠোর হবে। ভোজ্যতেলের সরবরাহ বাধা ভাঙতে ডিও (অনানুষ্ঠানিকপত্র) ব্যবস্থায় পরিবর্তন আনা হবে। সেটি হলে মালিকেরা একটি নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে পণ্য সরবরাহ নিতে বাধ্য হবেন এবং পরে সরবরাহ করতেও বাধ্য হবেন।

রমজানে কোনো পণ্য সংকট নেই জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের যথেষ্ট পরিমাণ দ্রব্য মজুদ আছে। সেটা দিয়ে রমজান মাস পার হয়ে যাবে। আমরা চেষ্টা করছি রমজান পর্যন্ত আগের দামটা রাখার জন্য।’ তবে কেউ অবৈধভাবে পণ্য মজুদ করলে তাঁর বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে সতর্ক করেন তিনি।

দেশবাসীকে রমজান মাসে তেল মজুত না করার অনুরোধ জানিয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ‘রমজান উপলক্ষে সবাই ঘরে তেল মজুদ করতে শুরু করলে তো বাজারে ঘাটতি দেখা দেবে। যতটুকু কেনার দরকার ততটুকুই কিনুন। পাঁচ লিটারের জায়গায় ১০ লিটার কিনলে ঠেকাতে পারব না। রমজান মাসের জন্য বেশি না কেনার অনুরোধ করছি।’

আগামীকাল মঙ্গলবার দেশে ভোক্তা অধিকার দিবস ২০২২ পালিত হবে। দিবসটি উপলক্ষে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর নানা কর্মসূচি হাতে নিয়েছে।

টিপু মুনশি বলেন, ভোক্তার অধিকার নিশ্চিত করতে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর ‘ভোক্তা বাতায়ন শীর্ষক হটলাইন সার্ভিস নম্বর ১৬১২১ চালু করেছে। যে কোন ভোক্তার অধিকার ক্ষুন্ন হলে এ নম্বরে ফোন করে অভিযোগ জানাতে পারবেন। তদন্তে অভিযোগ প্রমাণিত হলে আরোপিত জরিমান ২৫ ভাগ তাৎক্ষণিক ভাবে অভিযোগকারী প্রাপ্য হবেন। তিনি ভোক্তার অধিকার সুরক্ষায় দেশবাসীকে সচেতন করার ক্ষেত্রে সংবাদমাধ্যমকে এগিয়ে আসারও আহবান জানান।

এবারের বিশ্ব ভোক্তা অধিকার দিবসের মূল প্রতিপাদ্য হচ্ছে- ‘ডিজিটাল আর্থিক ব্যবস্থায় ন্যায্যতা।’

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, ২০০৯-১০ অর্থবছর থেকে ২০২০-২১ অর্থবছরের ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ভোক্তা অধিদপ্তর ৪৯ হাজার ৯৬৮টি অভিযান পরিচালনা করেছে। এসব অভিযানে ১ লাখ ২০ হাজার ১০২টি প্রতিষ্ঠানকে দন্ডিত করা হয়েছে। অভিযানের মাধ্যমে আদায় করা হয়েছে ৮২ কোটি ৪৫ লাখ ৬৭ হাজার ৪২ টাকা জরিমানা।

সম্পর্কিত খবর

প্রবাসী বাংলাদেশী আমেরিকানদের দেশে বিনিয়োগের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

gmtnews

মুশফিকের সঙ্গে ঢাকায় ফিরেছেন সাকিবও

Shopnamoy Pronoy

সিরিজের চতুর্থ ম্যাচে এসে জয়ের দেখা পেল আফগানরা

gmtnews

মন্তব্য করুণ

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন, তবে আপনি ইচ্ছা করলেই অপ্ট আউট করতে পারেন। স্বীকার করুন বিস্তারিত