অগ্রবর্তী সময়ের ককপিট
ক্রিকেট খেলা সর্বশেষ

রেকর্ড গড়া জয় বীর মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদদের উৎসর্গ করলেন নিগার

নিজেদের ওয়ানডে ইতিহাসে সর্বোচ্চ ২৫০ রানের সংগ্রহ গড়ার পরই কিছুটা আন্দাজ করা গিয়েছিল। বোলিং বিভাগ বেশ শক্তিশালী হওয়ায় বিজয় দিবসের রাতে দারুণ কিছুর প্রত্যাশাতেই ছিলেন বাংলাদেশের ক্রিকেটপ্রেমীরা।

শেষ পর্যন্ত হয়েছেও তাই। ইস্ট লন্ডনের বাফেলো পার্কে কাল দক্ষিণ আফ্রিকাকে ১৩১ রানে গুটিয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ। তুলে নিয়েছে ১১৯ রানের স্মরণীয় এক জয়। সর্বোচ্চ সংগ্রহের মতো রানের নিরিখে জয়ের ব্যবধানেও যা বাংলাদেশের মেয়েদের রেকর্ড। এত দিন সবচেয়ে বড় জয়টি ছিল এক যুগ আগে বিকেএসপিতে আয়াল্যান্ডের বিপক্ষে ৮২ রানে।

এ জয়ে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজে ১–০ ব্যবধানে এগিয়ে গেছে বাংলাদেশ। আগামী বুধবার পচেফস্ট্রুমে দ্বিতীয় ওয়ানডে জিতলেই সিরিজ মুঠোয় পুরবে নিগার সুলতানার দল।

বিজয় দিবসের রাতে বিশেষ এই জয় বীর মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযুদ্ধে শহীদের উৎসর্গ করেছেন নিগার। ম্যাচ শেষে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ অধিনায়ক বলেছেন, ‘আজ (কাল ছিল) আমাদের বিজয় দিবস। তাই আমি এই জয়টা মহান মুক্তিযুদ্ধে শহীদ ও বীর মুক্তিযোদ্ধাদের উৎসর্গ করতে চাই।’

টস হেরে আগে ব্যাটিংয়ে নেমে বাংলাদেশকে দারুণ শুরু এনে দেন ফারজানা হক ও শামীমা সুলতানা। উদ্বোধনী জুটিতে দুজন তোলেন ৬৬ রান। সেই ভিতের ওপর দাঁড়িয়েই ক্যারিয়ারসেরা অপরাজিত ৯১ রানের ইনিংস উপহার দেন তিনে নামা মুর্শিদা খাতুন। শামীমা আউট হওয়ার পর ফারজানা, অধিনায়ক নিগার ও স্বর্ণা আক্তারের সঙ্গে মুর্শিদা গড়েন তিনটি মূল্যবান জুটি। তাতেই নিজেদের ওয়ানডে ইতিহাসে রেকর্ড সংগ্রহ পেয়ে যায় বাংলাদেশ। পরে বাংলাদেশের বোলারদের সামনে দাঁড়াতেই পারেনি প্রোটিয়া মেয়েরা।

নিগার মনে করেন, টসে হারাটা তাঁর দলের জন্য ‘শাপে বর’ হয়েছে, ‘টস হেরে যাওয়াতে শেষ পর্যন্ত ভালোই হয়েছে। টস জিতলে আমিও আগে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নিতাম।’

শুধু এই ম্যাচ নয়, সাম্প্রতিক সময়ে ওয়ানডেতে বাংলাদেশ নারী দল বেশ ভালো করেছে। মিরপুরে গত জুলাইয়ে শক্তিশালী ভারতের বিপক্ষে সিরিজ ড্র করেছে। একই ভেন্যুতে গত মাসে পাকিস্তানের বিপক্ষে পিছিয়ে পড়েও সিরিজ জিতেছে। এবার দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতেও এই সংস্করণে প্রথম জয় পেল। নিগার জানালেন, এটা কঠোর পরিশ্রম ও নিজেদের ওপর বিশ্বাস রাখার ফল, ‘আমরা দীর্ঘ দিন ধরে কঠোর পরিশ্রম করে আসছি। দলের মধ্যে বিশ্বাসও জন্মেছে। টিম ম্যানেজমেন্টও অনেক কাজ করেছে। আমরা ভালো ফলের প্রত্যাশায় ছিলাম। যখন প্রত্যাশা পূরণ হয়, তখন সত্যিই ভালো লাগে।’
দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে এই সিরিজটা আইসিসি নারী চ্যাম্পিয়নশিপের তৃতীয় চক্রের আওতাধীন। নারী চ্যাম্পিয়নশিপের পয়েন্ট তালিকার ওপর ২০২৫ বিশ্বকাপে বাংলাদেশের সরাসরি জায়গা করে নেওয়া নির্ভর করছে। কালকের জয়ে শ্রীলঙ্কাকে টপকে পয়েন্ট তালিকার সাতে উঠে এসেছে বাংলাদেশ। কিন্তু ২০২৫ বিশ্বকাপে সরাসরি খেলবে স্বাগতিক ভারত ও শীর্ষ পাঁচ দল। আরও এক ধাপ ওপরে উঠে আসতে না পারলে বাংলাদেশকে বাছাই পর্বের বাধা টপকে আসতে হবে।
দক্ষিণ আফ্রিকাকে ধবলধোলাই করতে পারলে শীর্ষ দুইয়ে উঠে আসার সুযোগ আছে বাংলাদেশের। ২–১ ব্যবধানে সিরিজ জিতলেও শীর্ষ ছয়ে ঢুকে পড়বে। নিগারের চোখ এখন সেদিকেই, ‘এই ২ পয়েন্ট খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আগামী ম্যাচগুলো দুই দলের জন্য আরও গুরুত্বপূর্ণ। আমরা কেউই বাছাই পর্বে যেতে চাই না।’

সম্পর্কিত খবর

থাইল্যান্ডে রাজার সমালোচনা করায় এমপির দণ্ড

Hamid Ramim

স্থগিত এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু ১৫ সেপ্টেম্বর

gmtnews

অর্থনৈতিক পরিস্থিতি উন্নতির সম্ভাবনা দেখছে আইএমএফ

Zayed Nahin

মন্তব্য করুণ

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন, তবে আপনি ইচ্ছা করলেই অপ্ট আউট করতে পারেন। স্বীকার করুন বিস্তারিত