অগ্রবর্তী সময়ের ককপিট
অর্থনীতি বাংলাদেশ সর্বশেষ

শেখ হাসিনা জাতিকে স্বয়ংসম্পূর্ণ করতে কাজ করছেন : মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রী

শেখ হাসিনা জাতিকে স্বয়ংসম্পূর্ণ করতে কাজ করছেন : মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রী

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন,  জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতিকে দিয়েছেন রাজনৈতিক মুক্তি, আর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উন্নয়নের পাশাপাশি জাতিকে স্বয়ংসম্পূর্ণ করতে নিরলসভাবে  কাজ করে চলেছেন। ভবিষ্যতে আমাদের আর অন্যের মুখাপেক্ষী হতে হবে না।

মঙ্গলবার গাজীপুরের কালিয়াকৈরের বঙ্গবন্ধু হাইটেক সিটিতে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অধীন ‘এক্সপোর্ট কম্পেটিটিভনেস ফর জবস’ প্রকল্পের আওতায় ‘সেন্টার অব এক্সিলেন্স ফর সায়েন্স আন্ড টেকনোলজি’ -এর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যার পর দীর্ঘদিন স্বাধীনতাবিরোধী শক্তি ক্ষমতায় থাকায় দেশের কাঙ্খিত উন্নয়ন হয়নি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এখন বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল। প্রতিটি সেক্টরে এভাবে অগ্রগতি অব্যাহত থাকলে ২০৪১ সালের আগেই বাংলাদেশ উন্নত দেশে পরিনত হবে।

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী তার বক্তৃতায় বাংলাদেশের  পণ্যের ডিজাইন এবং গুণমান বৃদ্ধির উপর  গুরুত্বারোপ করে বলেন, পৃষ্ঠপোষকতা ও প্রযুক্তিগত সহায়তা পেলে গার্মেন্টস শিল্পের মত চামড়া ও চামড়া-জাত পণ্য, পাদুকা, প্লাস্টিক এবং লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং ইত্যাদি খাত হতেও প্রচুর বৈদেশিক  মুদ্রা অর্জন করা সম্ভব।  সে লক্ষ্যেই সেন্টার অব এক্সিলেন্স ফর সায়েন্স আন্ড টেকনোলজি স্থাপন করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, উচ্চমাত্রার প্রবৃদ্ধি, টেকসই উন্নয়ন এবং শোভন কর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে রপ্তানি বহুমুখীকরণের  লক্ষ্যে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় বিশ্বব্যাংকের অর্থায়নে এক্সপোর্ট কম্পিটিটিভনেস ফর জবস শীর্ষক ফ্ল্যাগশিপ প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে। প্রকল্পের অন্যতম উদ্দেশ্য হলো অত্যাধুনিক টেকনোলজি ব্যবহারের মাধ্যমে উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধি ও পণ্যের গুণগত মানোন্নয়ন করা। এ লক্ষ্যে প্রকল্পের আওতায় ৪টি অত্যাধুনিক টেকনোলজি সেন্টার চট্টগ্রাম, গাজীপুর ও মুন্সিগঞ্জে প্রতিষ্ঠা করা হবে। বিশ্বমানের এ সকল টেকনোলজি সেন্টারে অগ্রাধিকার প্রাপ্ত চারটি খাত যথা, চামড়া ও চামড়া-জাত পণ্য, পাদুকা, প্লাস্টিক এবং লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং খাতের শিল্পসমূহের জন্য টেকসই প্রযুক্তিগত সেবা  প্রদান করা হবে।

বাণিজ্য সচিব  তপন কান্তি ঘোষের  সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাণিজ্য মন্ত্রী টিপু মুনশি। অনুষ্ঠানে  অন্যান্যের মধ্যে  বঙ্গবন্ধু  হাইটেক সিটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক বিকর্ণ কুমার ঘোষ, এক্সপোর্ট  কম্পেটিটিভনেস ফর জবস’ প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক মো. মনসুরুল আলম, গাজীপুর জেলা প্রশসক এস. এম. তরিকুল ইসলাম  এবং গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র জাহাঙ্গীর আলম  উপস্থিত ছিলেন।

সুত্রঃ বাসস

সম্পর্কিত খবর

‘প্রধানমন্ত্রী দেশের মানুষকে মর্যাদার আসনে অধিষ্ঠিত করেছেন’

Shopnamoy Pronoy

ঢাকায় আসছেন রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী

gmtnews

ফিলিস্তিনপন্থী দুই সংগঠনের কার্যক্রম স্থগিত করল কলম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়, প্রতিবাদ-সমালোচনা

Hamid Ramim

মন্তব্য করুণ

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন, তবে আপনি ইচ্ছা করলেই অপ্ট আউট করতে পারেন। স্বীকার করুন বিস্তারিত