অগ্রবর্তী সময়ের ককপিট
বাংলাদেশ মুজিববর্ষ ও মুক্তিযুদ্ধ সর্বশেষ

প্রধানমন্ত্রীর সারাদেশে ৫০টি মডেল মসজিদ উদ্বোধন আজ

প্রধানমন্ত্রীর সারাদেশে ৫০টি মডেল মসজিদ উদ্বোধন আজ

মুজিববর্ষ উপলক্ষে আজ (১০ জুন) গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ৫০টি মডেল মসজিদ-সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বাংলাদেশ তথা বিশ্বের এই প্রথম কোন সরকার একসঙ্গে ৫৬০টি মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র নির্মাণ করছে।

ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, প্রতিটি জেলা ও উপজেলায় একটি করে ‘মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র স্থাপন’ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় মুজিববর্ষ উপলক্ষে ৫৬০টি মসজিদ নির্মাণ করা হচ্ছে। প্রথম পর্যায়ে ৫০টি মডেল মসজিদের নির্মাণকাজ শেষ হয়েছে। এটা বিশ্বের বৃহত্তম মসজিদ প্রকল্প হতে যাচ্ছে।

মসজিদ হচ্ছে ভাতৃত্ববোধ ও পারস্পরিক সুসম্পর্ক গড়ে ওঠার অন্যতম স্থান। মসজিদের শহর বলা হয় রাজধানী ঢাকাকে। বাংলাদেশসহ বিশ্বের বিভিন্নস্থানে অসংখ্য দৃষ্টিনন্দন, অপূর্ব স্থাপত্যশৈলীর সমন্বয় ঘটিয়ে অনেক মসজিদই রয়েছে। শুধু নামাজ আদায় নয়, একটি মসজিদে নামাজ আদায়সহ আরও প্রায় ২০ ধরনের সুযোগ-সুবিধা রেখে বাংলাদেশে একসঙ্গে এত বিপুল পরিমাণ একই মডেলের আধুনিক স্থাপত্যশৈলীতে নির্মিত মসজিদের উদ্বোধন বিশ্বে এই প্রথম। তিন ক্যাটাগরিতে নির্মিতব্য এই ৫৬০টি মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র নির্মাণে সরকারের ব্যয় হচ্ছে ৮ হাজার ৭২২ কোটি টাকা।

মসজিদগুলো ঢাকার সাভার উপজেলা, ফরিদপুরের মধুখালী ও সালথা উপজেলা, কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া ও কুলিয়ারচর উপজেলা, মানিকগঞ্জের শিবালয় উপজেলা, রাজবাড়ী সদর উপজেলা, শরীয়তপুর সদর ও গোসাইহাট উপজেলা, বগুড়ার শারিয়াকান্দি, শেরপুর ও কাহালু উপজেলা, নওগাঁর সাপাহার ও পরশা উপজেলা সিরাজগঞ্জ জেলা ও সদর উপজেলা, পাবনার চাটমোহর উপজেলা, রাজশাহীর গোদাগারি ও পাবা উপজেলা, দিনাজপুরের খানসামা ও বিরল উপজেলা, লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলা, পঞ্চগড় সদর ও দেবীগঞ্জ উপজেলা, রংপুর জেলা, সদর উপজেলা, মিঠাপুকুর, পীরগঞ্জ ও বদরগঞ্জ উপজেলা, ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুর উপজেলা, নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলা, ময়মনসিংহের গফরগাঁও ও তারাকান্দা উপজেলা, চট্টগ্রাম জেলা, লোহাগড়া, মীরসরাই ও সন্দ্বীপ উপজেলা, জামালপুর সদর ও ইসলামপুর উপজেলা, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর ও বিজয়নগর উপজেলা, ভোলা সদর, সিলেটের দক্ষিণসুরমা উপজেলা, কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলা, খাগড়াছড়ির পানছড়ি উপজেলা, কুষ্টিয়া সদর, খুলনা জেলা, চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলা, ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলা এবং চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলায় নির্মিত হয়েছে।

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান বলেন, এসব মডেল মসজিদ এবং সাংস্কৃতিক কেন্দ্র ইসলামের প্রচার-প্রসারে ভূমিকা রাখার পাশাপাশি সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও নারীর প্রতি সহিংসতা রোধ এবং সরকারের উন্নয়ন কার্যক্রম সম্পর্কে জনসচেতনতা বাড়াতে ভূমিকা রাখবে।

সম্পর্কিত খবর

আওয়ামী লীগ ক্ষমতাকে জনগণের সেবা করার সুযোগ হিসেবে দেখে: প্রধানমন্ত্রী

gmtnews

সুইডেনের রাজকন্যা এখন খুলনার কয়রায়

gmtnews

আখেরি মোনাজাত শেষে মুসল্লিদের বাড়ি ফেরার ঢল

gmtnews

মন্তব্য করুণ

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন, তবে আপনি ইচ্ছা করলেই অপ্ট আউট করতে পারেন। স্বীকার করুন বিস্তারিত