অগ্রবর্তী সময়ের ককপিট
বাংলাদেশ রাজনীতি

যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশি তরুণ নিহত হওয়া মানবাধিকারের লঙ্ঘন: তথ্যমন্ত্রী

ক্তরাষ্ট্রের বোস্টনে বাংলাদেশি শিক্ষার্থী সৈয়দ ফয়সালের মৃত্যুকে অত্যন্ত অনভিপ্রেত, দুঃখজনক ও মানবাধিকারের লঙ্ঘন বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ। তিনি বলেছেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রেও যে মানবাধিকার লঙ্ঘিত হয়, সেটা চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে এই হত্যাকাণ্ড। মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর কাকরাইলে তথ্য ভবন মিলনায়তনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন। তথ্য মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসব কথা বলা হয়। তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আমি পুলিশের গুলিতে নিহত বাংলাদেশি ছাত্রের আত্মার মাগফিরাত কামনা করি। তবে যুক্তরাষ্ট্রের সরকার ইতিমধ্যেই সংশ্লিষ্ট পুলিশ অফিসারকে সাসপেন্ড করেছে, তদন্ত চলছে। আশা করি, যুক্তরাষ্ট্রের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর যাঁরা এ ঘটনার জন্য দোষী, তাঁদের বিচার হবে।’হাছান মাহমুদ বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র আমাদের বন্ধুপ্রতিম রাষ্ট্র। আমাদের দেশে মানবাধিকার যাতে লঙ্ঘিত না হয়, কেউ লঙ্ঘন না করে, সেদিকে আমরা সতর্ক দৃষ্টি রাখছি। বিশ্বময় কোথাও যেন মানবাধিকার লঙ্ঘিত না হয়, সেটিও আমরা চাই।’ মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর কাকরাইলে তথ্য ভবন মিলনায়তনে সাংবাদিকদের  বিএনপির দুই শীর্ষ নেতার জামিনে মুক্তি প্রসঙ্গে তথ্যমন্ত্রী হাছান বলেন, মির্জা ফখরুল এবং মির্জা আব্বাস যে মুক্তি পেয়েছেন, এতেই প্রমাণিত হয়েছে বাংলাদেশের আইন–আদালত স্বাধীন। কারণ, সরকার তাঁদের গ্রেপ্তার করেছিল, তাঁরা আইনি লড়ায়ের মাধ্যমে আইনি প্রক্রিয়ায় মুক্তি লাভ করেছেন। দেশের আইন–আদালত অত্যন্ত স্বাধীনভাবে কাজ করেন, সেই কারণেই তাঁরা মুক্তি লাভ করেছেন। তিনি বলেন, ‘আমি তাঁদের দুজনের সুস্বাস্থ্য এবং দীর্ঘায়ু কামনা করি। তাঁরা যাতে সুস্বাস্থ্য বজায় রেখে সরকারের বিরোধিতা করতে পারেন, সেটিই আমি কামনা করি। ১১ জানুয়ারি বিএনপির দেশব্যাপী গণ-অবস্থান কর্মসূচি নিয়ে প্রশ্নের জবাবে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘বিএনপি বা কোনো বিরোধী দল যদি শান্তিপূর্ণ কোনো কর্মসূচি পালন করে, সে ক্ষেত্রে সরকার সব সময় সহযোগিতা করেছে এবং করবে। কিন্তু আমরা সব সময় দেখেছি তারা শান্তিপূর্ণ কর্মসূচির কথা বলে সেখানে অশান্তি তৈরি করে এবং জনগণের সম্পত্তি বিনষ্ট করে।’ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাছান মাহমুদ বলেন, ‘১০ ডিসেম্বর ঘিরেও তারা দেশে অশান্তি তৈরি করেছিল। তারা গাড়িতে আগুন দিয়েছে, গাড়ি ভাঙচুর করেছে এবং জনগণের শান্তি নিরাপত্তা স্থিতি বিনষ্ট করেছে। ১১ তারিখেও আমরা সতর্ক দৃষ্টি রাখব, সতর্ক পাহারায় থাকব। আমাদের দল সতর্ক পাহারায় থাকবে, যাতে তারা রাজনৈতিক কর্মসূচির নামে দেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে না পারে। যদি করার চেষ্টা করা হয়, তাহলে জনগণ প্রতিহত করবে, আমাদের দল জনগণের সঙ্গে থাকবে।’

 

 

 

সম্পর্কিত খবর

জহির খানের চোখে বাংলাদেশের বড় শক্তি সাকিব-মুশফিক

Shopnamoy Pronoy

কয়েকটি রাজনৈতিক দল আওয়ামী লীগ সরকারকে উৎখাতে ষড়যন্ত্র করছে: প্রধানমন্ত্রী

gmtnews

আইসিসির সেপ্টেম্বরের সেরা হওয়ার দৌড়ে বাংলাদেশের নাসুম

gmtnews

মন্তব্য করুণ

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন, তবে আপনি ইচ্ছা করলেই অপ্ট আউট করতে পারেন। স্বীকার করুন বিস্তারিত