অগ্রবর্তী সময়ের ককপিট
ক্রিকেট খেলা সর্বশেষ

২৭ বছর পর আফ্রিদির যে রেকর্ডের পাশে ফখর

ম্যাচটা ছিল পাকিস্তানের জন্য বাঁচা-মরার। নিউজিল্যান্ডের কাছে হারলে আজই বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিশ্চিত হয়ে যেত বাবর আজমদের। কিন্তু ফখর জামানের দুর্দান্ত এক শতকে আপাতত রক্ষা পাকিস্তানের। এই শতকের পথে শহীদ আফ্রিদির প্রায় তিন দশক পুরোনো এক রেকর্ডে ভাগ বসিয়েছেন ফখর।

বেঙ্গালুরুতে ফখর ব্যাটিংয়ে নামেন নিউজিল্যান্ডের ৪০১ রান তাড়ায়। বৃষ্টিতে খেলা বন্ধের আগপর্যন্ত পাকিস্তান ২৫.৩ ওভারে তোলে ১ উইকেটে ২০০ রান। এর মধ্যে ৮১ বলে ১২৬ রানই তোলেন ফখর। ৩৩ বছর বয়সী এই বাঁহাতির ইনিংসে ছিল ১১টি ছয় ও ৮টি চার।

১৯৯৬ সালে নাইরোবিতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে খেলা শহীদ আফ্রিদির ১০২ রানের ইনিংসটির কথা কে না জানেন। সে দিন ৩৭ বলে ১০০ রান তুলে দ্রুততম শতকের বিশ্ব রেকর্ড গড়েছিলেন আফ্রিদি। পরবর্তী সময়ে সেই রেকর্ড ভেঙেও গেছে। তবে দ্রুততম শতকের পথে আফ্রিদি যে ১১টি ছক্কা মেরেছিলেন, পাকিস্তানের আর কোনো ব্যাটসম্যান সেটা এত দিন ভাঙতে পারেননি। এমনকি আফ্রিদিকে স্পর্শও করতে পারেননি।

২৭ বছর পর আজ বেঙ্গালুরুতে আফ্রিদির সেই ১১ ছক্কার রেকর্ড ছুঁয়েছেন ফখর। অর্থাৎ পাকিস্তানের হয়ে ওয়ানডেতে এক ইনিংসে সবচেয়ে বেশি ছক্কার রেকর্ড এখন যৌথভাবে আফ্রিদি ও ফখরের। এর আগে ২০২১ সালে জোহানেসবার্গে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ১৯৩ রানের ইনিংস খেলার পথে ১০টি ছয় মেরেছিলেন ফখর।

আজ নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ফখরের ইনিংসটির সুবাদেই বৃষ্টিতে খেলা বন্ধের আগে ডিএলএস মেথডে এগিয়ে যায় পাকিস্তান। শেষ পর্যন্ত বৃষ্টি আইনে ২১ রানে ম্যাচও জেতে বাবরের দল। ম্যাচ শেষে ফখরের চমৎকার ইনিংসের ব্যাপক প্রশংসা করেন অধিনায়ক বাবর, ‘আমি শুধু ফখরকে বলেছি, তুমি ১৫ ওভার খেলতে পারলে আমরা এগিয়ে যাব। আমাদের লক্ষ্য ছিল জুটি গড়া। আমি শুধু ফখরকে স্ট্রাইকে পাঠাতে চেয়েছি। কারণ, (মনে হচ্ছিল) সে আরেকটি পিচে ব্যাটিং করছে। আমরা জানতাম, বাউন্ডারি ছোট আছে। সেটাই কাজে লাগিয়েছি।’

আফ্রিদির ১১ ছয়ের রেকর্ডে ভাগ বসানোর পাশাপাশি অন্য একটি রেকর্ড নিজের করে নিয়েছেন ফখর। বিশ্বকাপে পাকিস্তানের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ছক্কা এখন তাঁরই। বিশ্বকাপে ১১ ম্যাচে ১১ বার ব্যাটিং করে ২১টি ছক্কা ফখরের। ২৭ ম্যাচের ২৪ ইনিংসে ১২টি ছক্কা মেরে এত দিন রেকর্ডটির মালিক ছিলেন শহীদ আফ্রিদি।

২১ ছক্কার ১৮টি এবার তিন ম্যাচেই মেরেছেন ফখর। রেকর্ড এটিও। ২০০৭ বিশ্বকাপ থেকে পাকিস্তান বিদায় নেওয়ার আগে তিন ম্যাচে ৯টি ছক্কা মেরেছিলেন ইমরান নাজির। এবারের আগে এক বিশ্বকাপে পাকিস্তানিদের সর্বোচ্চ ছক্কার রেকর্ড ছিল সেটিই। এবার পাকিস্তান ওপেনার আবদুল্লাহ শফিক ছুঁয়ে ফেলেন নাজিরকে। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ১১টি ছক্কা মারার পথে নাজির-শফিকের রেকর্ড থেকে দ্বিগুণ দূরত্বে চলে গেলেন ফখর।

সম্পর্কিত খবর

ঈদুল আজহার মর্মবাণী অন্তরে ধারণ করে সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ে তুলি: প্রধানমন্ত্রী

gmtnews

বন্যাকবলিত ৯০ হাজার মানুষকে আশ্রয়কেন্দ্রে আনা হয়েছে: ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী

gmtnews

ভারতের চেয়ে পাকিস্তানকে এগিয়ে রাখছেন বাবর

Zayed Nahin

মন্তব্য করুণ

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন, তবে আপনি ইচ্ছা করলেই অপ্ট আউট করতে পারেন। স্বীকার করুন বিস্তারিত