30 C
Dhaka
June 13, 2024
অগ্রবর্তী সময়ের ককপিট
বিশ্ব সর্বশেষ

ইউক্রেনের গোয়েন্দাপ্রধানের স্ত্রীকে বিষ প্রয়োগ

ইউক্রেনের সামরিক গোয়েন্দা বাহিনীর (জিইউআর) প্রধান লেফটেন্যান্ট জেনারেল কিরিলো বুদানভের (৩৭) স্ত্রী মারিয়ানা বুদানভার (৩০) শরীরে বিষপ্রয়োগের ঘটনা ঘটেছে। জিইউআরের মুখপাত্র আন্দ্রি ইউসভ স্থানীয় সময় গতকাল মঙ্গলবার এ তথ্য জানিয়েছেন।

ইউসভ জানান, তাঁদের বাহিনীর আরও বেশ কয়েকজন সদস্যের মধ্যে বিষক্রিয়ার হালকা লক্ষণ দেখা গেছে। তবে মারিয়ানার শরীরে ভারী কোনো ধাতু দিয়ে বিষ প্রয়োগ করা হয়েছে। তাঁকে একটি হাসপাতালে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

এদিকে এ ঘটনার পেছনে রাশিয়ার কোনো হাত রয়েছে কি না, তা ইউক্রেনের কোনো গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়নি। এমনকি জেনারেল কিরিলো বুদানভও এ ঘটনায় লক্ষ্যবস্তু ছিলেন কি না, তা–ও উল্লেখ করা হয়নি।

মারিয়ানার শরীরে যে ভারী ধাতু দিয়ে বিষয় প্রয়োগের কথা সন্দেহ করা হচ্ছে, সে সম্পর্কে বিস্তারিত কিছু জানানো হয়নি। তবে নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, তাঁর শরীরে যে পদার্থ প্রয়োগ করা হয়েছে, তা প্রাত্যহিক জীবনে বা সামরিক অভিযানেও ব্যবহৃত হয় না।

ইউক্রেনের অনলাইন নিউজ পোর্টাল ইউক্রেনস্কা প্রাভদার প্রতিবেদনে বলা হয়, স্বাস্থ্য পরীক্ষার মধ্য দিয়ে মারিয়ানার বিষ প্রয়োগের বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে। গণমাধ্যমটি তাদের নিজস্ব সূত্রের বরাতে জানিয়েছে, সম্ভবত বিষাক্ত খাবারের মাধ্যমে এ ঘটনা ঘটানো হয়েছে। প্রাথমিক চিকিৎসার পর তিনি এখন ‘কিছুটা ভালো বোধ’ করছেন।

কিয়েভভিত্তিক বার্তা সংস্থা ইউনিয়ান তাদের নিজস্ব সূত্রের বরাতে জানিয়েছে, মারিয়ানা ইউক্রেনেই চিকিৎসা নিচ্ছেন। তাঁকে বিদেশে নেওয়া হয়নি।

২০২২ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে ইউক্রেনে শুরু করা রাশিয়ার সামরিক অভিযানের গোড়া থেকেই তৎপর রয়েছেন বুদানভ। তিনি দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের বিশেষ গোয়েন্দা শাখা দ্য মেইন ডিরেক্টরেট অব ইন্টেলিজেন্সের (ডিআইইউ) নেতৃত্ব দিয়ে আসছেন। রাশিয়ায় চালানো ইউক্রেনের সব সামরিক অভিযানের পরিকল্পনার পেছনে বিশেষ ভূমিকা রয়েছে ডিআইইউর। এমনকি রুশ বাহিনীর বিরুদ্ধে কখনো কখনো বড় ধরনের সামরিক অভিযানে নেতৃত্ব দিয়েছে সংস্থাটি। সবকিছু মিলিয়ে প্রতিপক্ষের ভালোই লক্ষ্যবস্তুতে বুদানভ রয়েছেন বলে মনে করা হয়। যেমন চলতি বছরের শুরুতে ইউক্রেনস্কা প্রাভদাকে মুখপাত্র ইউসভ বলেন, এ পর্যন্ত ১০ বারের বেশিবার জেনারেল বুদানভকে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে।

গত সেপ্টেম্বরে ওয়ার জোন ওয়েবসাইটকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে জেনারেল বুদানভ বলেছেন, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকে নিরাপত্তার স্বার্থে মারিয়ানা তাঁর (বুদানভ) কার্যালয়ে অবস্থান করছেন। মনোবিজ্ঞানের স্নাতকোত্তর করা মারিয়ানা রাজনীতির সঙ্গে জড়িত রয়েছেন। তিনি কিয়েভের মেয়রের উপদেষ্টা ছিলেন। ২০২০ সালে সাময়িকী এলিকে এক সাক্ষাৎকারে মারিয়ানা জানিয়েছেন, ২০১৫ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত তিনি কিয়েভের সামরিক হাসপাতালে স্বেচ্ছাসেবক হিসেবেও কাজ করেছেন।

সম্পর্কিত খবর

এটি একটি যুদ্ধ নয়, একটি ধ্বংসযজ্ঞ: এরদোয়ান

Hamid Ramim

বাংলাদেশ ভবিষ্যতে ইউনেস্কো-বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক পুরস্কার পাবে : প্রধানমন্ত্রী

gmtnews

বিএনপির অপপ্রচার মিথ্যা : তথ্যমন্ত্রী

gmtnews

মন্তব্য করুণ

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন, তবে আপনি ইচ্ছা করলেই অপ্ট আউট করতে পারেন। স্বীকার করুন বিস্তারিত