অগ্রবর্তী সময়ের ককপিট
খেলা ফুটবল সর্বশেষ

রুদ্ধশ্বাস জয়ের পথে আর্সেনালের অন্য রকম রেকর্ড

এ সপ্তাহের শুরুতে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে রোমাঞ্চকর ম্যাচের পসরা সাজিয়েছিল। কাল রাতে রোমাঞ্চ দিয়ে শুরু হলো আরেক রাউন্ডের খেলাও। ৭ গোলের সেই রোমাঞ্চে শেষ মুহূর্তের গোলে জিতে পয়েন্ট তালিকায় নিজেদের অবস্থান আরও শক্ত করেছে আর্সেনাল। আর সেই জয়ের পথে অন্য রকম একটি রেকর্ডও গড়েছে গানাররা।

মঙ্গলবার রাতে অ্যাওয়ে ম্যাচে লুটন টাউনের বিপক্ষে ৪-৩ গোলে জিতেছে মিকেল আরতেতার দল। ৯৭ মিনিটে গোল করে এই ম্যাচে আর্সেনালকে জয় এনে দিয়েছেন ডেকলান রাইস। এই জয়ে দ্বিতীয় স্থানে থাকা লিভারপুলের চেয়ে ৫ পয়েন্টে এগিয়ে গেল আর্সেনাল; যদিও এক ম্যাচ বেশি খেলেছে তারা। ১৫ ম্যাচে তাদের পয়েন্ট ৩৬। ১৫ ম্যাচে ২ জয়ে ৯ পয়েন্ট নিয়ে ১৭তম স্থানে লুটন। কঠিন পরিস্থিতিতে জয় পেয়ে খুশি আর্সেনাল কোচ আরতেতা। আর শেষ মুহূর্তে গোল করে দলকে জেতানো রাইসের কাছে সম্মানের, বলছেন এই ইংলিশ ফুটবলার।

আর্সেনালের হয়ে এদিন গোলের খাতা খোলেন গ্যাব্রিয়েল মার্তিনেল্লি। ২০ মিনিটে গোল করে দলকে এগিয়ে দেন তিনি। ২৫ মিনিটে দলকে সমতায় ফেরান লুটনের গ্যাব্রিয়েল ওশো। তবে বিরতির আগে গ্যাব্রিয়েল জেসুসের গোলে ২-১ এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় আর্সেনাল।

ব্রাজিলিয়ান তারকার গোলটা একটি অন্য রকম রেকর্ড উপহার দেয় আর্সেনালকে। জেসুসের গোলসহ প্রিমিয়ার লিগে আর্সেনালের সর্বশেষ ১১টি গোল করেছেন ১১ জন খেলোয়াড়। প্রিমিয়ার লিগ ইতিহাসে কোনো দলের টানা ১১টি গোল ১১ জন খেলোয়াড়ের করার প্রথম উদাহরণ এটি।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই ৪৯ মিনিটে এইজা আদিবায়ো গোল করে লুটনকে আবারও সমতা এনে দেন। এরপর রস বার্কলির ৫৭ মিনিটের গোলে এগিয়ে স্বাগতিকেরা; যদিও ৩ মিনিট পরই গোল করেন কাই হাভার্টজ, ম্যাচে ফেরে আর্সেনাল। এমন হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের ম্যাচের শেষ হাসি আর্সেনালেরই। ৯৭ মিনিটে রাইসের হেডে লুটনের জালে বল জড়ালে উল্লাসে মাতে আর্সেনাল। হতাশায় ভেঙে পড়ে লুটন।

ম্যাচ শেষে আর্সেনাল কোচ বলছেন, ‘আমি খুব খুশি। আমরা জানতাম, এখানে কঠিন লড়াই করতে হবে। আর আমরা সহজে গোল হজম করে সেটা আরও কঠিন করেছি। যেভাবে আমরা লড়াই করেছি, নিজেদের সামর্থ্য সঠিক সময়ে দেখিয়েছি, আর আমরা কখনো হাল ছেড়ে দিই না, এটাই আমাদের দলের চেতনা। আমরা জয়ের জন্য খেলেছি, ফলও পেয়েছি। লুটনের প্রশংসা করতে হবে। কঠিন একটা রাত ছিল।’

অ্যামাজন প্রাইমে জয়ের নায়ক রাইস বলেছেন, ‘লুটন শীর্ষ একটি দল, তাদের সামর্থ্যকে এই লিগে উপেক্ষা করা ঠিক হবে না। শেষ মিনিটে গোল করা, ছন্দ ধরে রাখা, এটা আমাদের জন্য বড় বিষয়। এই মুহূর্তগুলোর দিকে আপনি ফিরে তাকাতে পারবেন। কী দারুণ একটা ম্যাচ! জয়সূচক গোল করা সম্মানের।’
আর্সেনালের পরের ম্যাচ ৯ ডিসেম্বর, অ্যাস্টন ভিলার বিপক্ষে।

সম্পর্কিত খবর

ব্যালন ডি’অর কে জিতবে, জানেন মার্তিনেজ

Shopnamoy Pronoy

২০২২ সালের মার্চে ঢাকায় শুরু পাতালরেলের কাজ

News Editor

অতি আত্মবিশ্বাসই ডুবিয়েছে লঙ্কানদের

Shopnamoy Pronoy

মন্তব্য করুণ

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন, তবে আপনি ইচ্ছা করলেই অপ্ট আউট করতে পারেন। স্বীকার করুন বিস্তারিত