অগ্রবর্তী সময়ের ককপিট
খেলা ফুটবল সর্বশেষ

The fans will be the owners

লম্বা সময় ধরে ইউরোপের শীর্ষ লিগের ক্লাবগুলোয় চোখ মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশের ব্যবসায়ীদের। যে ধারায় ম্যানচেস্টার সিটি, পিএসজি এবং নিউক্যাসলের মতো ক্লাবগুলো কিনেছেন তাঁরা। এর বাইরে কয়েকটি ইউরোপীয় ক্লাবের মালিকানায় যুক্তরাষ্ট্রের বেশ কয়েকজন ব্যক্তি ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানও আছে। এবার স্প্যানিশ ফুটবলে ক্লাবের মালিকানা গ্রহণের উদ্যোগ নিয়েছে একটি ক্যালিফোর্নিয়াভিত্তিক কোম্পানি। তবে প্রযুক্তির শহরখ্যাত সিলিকন ভ্যালির এই কোম্পানির পরিকল্পনাটা একটু ভিন্ন। তারা ক্লাবের মালিকানা চায় বটে, তবে সেটা নিজেদের অর্থে নয়।

স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম দিয়ারিও এএস জানিয়েছে, সিলিকন ভ্যালির খেলাধুলায় বিনিয়োগকারী কোম্পানি এফ২০ স্পোার্টস ক্রাউফান্ডিং বা গণচাঁদা সংগ্রহের মাধ্যমে ক্লাব কিনতে চায়। তাদের মৌলিক ভাবনা হচ্ছে, বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা ফুটবলপ্রেমীরা একটি ক্লাবে বিনিয়োগ করবে।

শুধু বিনিয়োগই করবে না, ক্লাব কীভাবে চলবে, তা নিয়েও তাদের মন্তব্যকে গুরুত্ব দিয়ে বিবেচনা করা হবে। সমর্থকদের এই অংশগ্রহণকে বলা হচ্ছে, ‘ফ্যান টু ওনার’। এএস আরও জানিয়েছে, কোম্পানিটির লক্ষ্য একটি স্প্যানিশ ক্লাবে বিনিয়োগ করা। এরই মধ্যে তারা ৫০ হাজার ইউরো সংগ্রহও করেছে।

কোম্পানিটি নিজেদের উদ্দেশ্য সম্পর্কে বলেছে, ‘আমরা বিশ্বব্যাপী ভক্তদের স্প্যানিশ ক্লাবের মালিক হওয়ার সুযোগ দিতে চাই। আমরা তাদের ক্রীড়াশিল্পে এমনভাবে অংশগ্রহণের সুযোগ দিতে চাই, যা আগে কখনোই হয়নি। আমরা এটা নিশ্চিত করতে চাই যে যেকোনো সিদ্ধান্তে সমর্থকদের মতামতকে যেন গুরুত্বের সঙ্গে নেওয়া হয়। যা কিনা আগে অল্প কজনের জন্য বরাদ্দ ছিল। আর এটা তখনই সম্ভব হবে, যখন তারা নিজেদের কেনা শেয়ারগুলোকে অর্থে রূপান্তর করতে পারবে।’

স্প্যানিশ ক্লাবে বিনিয়োগের আহ্বান জানিয়ে কোম্পানিটি লিখেছে, ‘বিশ্বে খুব কম জায়গাই আছে যেখানে খেলাধুলার প্রতি ভালোবাসা সংস্কৃতির সঙ্গে মিশে যায়। তাই এফ২০ স্পোর্টসে বিনিয়োগ করুন এবং আপনার পছন্দের ক্লাবের মালিক হয়ে যান। এখন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করুন এবং ক্রীড়া মালিকানার ভবিষ্যৎ গঠনের রোমাঞ্চকর অভিজ্ঞতা লাভ করুন।’

জানা গেছে, সম্ভাব্য ক্লাবগুলোর একটি লা লিগার দল গ্রানাদা। এ ছাড়া তৃতীয় বিভাগের ফুয়েনলাব্রাদা ও সাবাডেল এবং চতুর্থ বিভাগের তালাভেরাও আছে তালিকায়। এর আগে গত আগস্টে কোম্পানিটির প্রতিষ্ঠাতারা ক্লাবগুলোয় ভ্রমণও করেছেন। এর মাধ্যমে ক্লাবগুলো কীভাবে পরিচালিত হয়, সে ধারণা নিয়েছেন তাঁরা।

এই পরিকল্পনা বাস্তবায়নের মাধ্যমে বর্তমান ফুটবলে থাকা মালিকদের অস্বস্তিতে ফেলার কথাও বলছে কোম্পানিটি। গ্রানাদা বর্তমানে লা লিগা পয়েন্ট তালিকায় ১৯ নম্বরে আছে। দলটি শেষ পর্যন্ত অবনমিত হয়ে পরের স্তরে নেমে গেলে তাদের দামও কমে যাবে। এর আগে গত গ্রীষ্মেও ক্লাবটি প্রায় বিক্রি হওয়ার দ্বারপ্রান্তে চলে গিয়েছিল, যা ক্লাব নিয়ে চুক্তির ব্যাপারে মালিকদের ইতিবাচক থাকার ইঙ্গিতও দিচ্ছে।

সম্পর্কিত খবর

এক নারী এবং তার দুই সন্তানকে মুক্তি দিলো হামাস

Hamid Ramim

পদত্যাগের হুমকির হ্যাটট্রিক ইনজামামের

Shopnamoy Pronoy

বিএনপির নেতাদের কথায় সরকারের পতন হবে না: ওবায়দুল কাদের

gmtnews

মন্তব্য করুণ

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন, তবে আপনি ইচ্ছা করলেই অপ্ট আউট করতে পারেন। স্বীকার করুন বিস্তারিত