অগ্রবর্তী সময়ের ককপিট
বিশ্ব সর্বশেষ

পেঁয়াজ রফতানিতে নিষেধাজ্ঞা জারি ভারতের

পেঁয়াজ রফতানির ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে ভারত সরকার। দেশটির বাজারে পেঁয়াজের দাম বাড়ার প্রেক্ষাপটে এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে বলে ভারতীয় মিডিয়ায় দাবি করা হয়েছে। আসন্ন নির্বাচনে পেঁয়াজের দাম যাতে কোনো বিরূপ প্রভাব না ফেলে, সে দিকেও নজর রাখছে ভারত সরকার।

হিন্দুস্তান টাইমসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, পেঁয়াজের দাম মারাত্মক আকার ধারণ করছে। এত দাম বৃদ্ধি হয়েছে যে বাজারে গিয়ে মানুষ রীতিমতো ছ্যাঁকা খাচ্ছে। পেঁয়াজের দামের ঝাঁঝে চোখ–মুখ দিয়ে পানি বেরতে শুরু করেছে। এই পরিস্থিতির কথা জানতে পেরে এবার ভারত সরকার পেঁয়াজ রফতানির উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করল। শনিবার এই নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। যে
পেঁয়াজের দাম দু’‌দিন আগে পর্যন্তও ৪৫ টাকা (রুপি) কেজি দরে বিক্রি হয়েছে সেটাই আকাশছোঁয়া হয়ে দাঁড়িয়েছে। এই পেঁয়াজের দাম এখন ঘোরাফেরা করছে ৬৫ রুপি কেজি দরে। পেঁয়াজের দাম সারা দেশেই বাড়ছে। আর এই পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধিতে চাপে পড়েছে আমজনতা। বেশ কিছু দিন আগে খুচরো বাজারে পেঁয়াজের কেজি প্রতি দাম ১০০–১৫০ টাকা পৌঁছেছিল। সেটাও দেখেছেন মধ্যবিত্তরা।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, এদিকে পেঁয়াজ সরবরাহ এবং দামের উপর নতুনভাবে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এমনকি সবজির বিদেশী চালানের উপরও মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে। খুচরো বাজারে পেঁয়াজের দাম কার্যত দ্বিগুণ হয়ে গিয়েছে। এক সপ্তাহের মধ্যে বিভিন্ন শহরে পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে। আর সব সবজি নয়াদিল্লিতে ৫০–৬০ রুপি কেজি দরে বিকোচ্ছে। এখন উৎসবের মরশুম চলছে। সেখানে এমন দাম বৃদ্ধিতে নাভিশ্বাস উঠেছে সাধারণ মানুষের। এখন রবি মরশুমে উৎপাদিত এবং সংরক্ষিত পেঁয়াজই বাজারে আসছে। কিন্তু সেটা পরিমাণে যথেষ্ট নয়। আবার মজুত করে রাখা পেঁয়াজও কমে গেছে। সুতরাং চাহিদার সাথে জোগানের বড় পার্থক্য দেখা দিয়েছে। বিক্রেতারা যে দামে পাচ্ছেন সেটাতে নিজেদের লাভ বসিয়ে আরো বেশি দামে বিক্রি করছেন।

অন্যদিকে এই দাম বৃদ্ধি রুখতে ন্যূনতম রফতানি মূল্য প্রতি টনে করা হচ্ছে ৮০০ ডলার। আর এটা কার্যকর হবে ২৯ অক্টোবর থেকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত। এই বিষয়ে নোটিফিকেশন জারি করেছে ভারতের বৈদেশিক বাণিজ্যের ডিরেক্টরেট জেনারেল। আবার মহারাষ্ট্র, কর্নাটক, মধ্যপ্রদেশসহ অন্যান্য রাজ্যে বর্ষাকালে যে পেঁয়াজের চাষ হয় সেটাই এখন বাজারে আসতে শুরু করে। কিন্তু সেই পেঁয়াজ আসতে দেরি হচ্ছে। সুতরাং ভারতের একাধিক রাজ্যে যা আছে তার দাম বেড়ে যাচ্ছে। জোগান কমছে বলেই বাড়ছে দাম। তবে অন্যান্য রাজ্যের পেঁয়াজ বাজারে আসলে দাম কমবে বলে ব্যবসায়ীরা মনে করছেন।

এছাড়া শনিবার ভারত সরকার সিদ্ধান্ত নিয়ে ২০ লাখ টন পেঁয়াজ সংগ্রহ করবে। যাতে সরকার পেঁয়াজ বিক্রি করতে পারে কম দামে যে শহরগুলোতে দাম আকাশছোঁয়া হয়েছে। এখন পর্যন্ত যে তথ্য ভারত সরকারের হাতে এসেছে তাতে ১৬টি শহরে পেঁয়াজের দাম লাগামছাড়া বৃদ্ধি পেয়েছে।
তবে এই পেঁয়াজ রফতানিতে নিষেধাজ্ঞার পিছনে রয়েছে সামনে পাঁচ রাজ্যের নির্বাচন কর্মকাণ্ড। তাছাড়া বছর ঘুরলেই লোকসভা নির্বাচন। সেখানে পেঁয়াজের দাম বাড়লে তা সারা দেশে প্রভাব পড়বে। তাই ক্রেতা সুরক্ষা দফতর নির্দেশ দিয়েছে, এনসিসিএফ এবং নাফেড যাতে বেশি করে পেঁয়াজ কেনে চাহিদা মেটানোর জন্য।

সম্পর্কিত খবর

ধর্ম নিয়ে বাড়াবাড়ি বন্ধ করুন : প্রধানমন্ত্রী

gmtnews

মানুষের মুক্তি আর সাম্যের জয়গানে স্বতন্ত্র নজরুল: তথ্যমন্ত্রী

gmtnews

কোন সাংবাদিক অহেতুক হয়রানির শিকার হবেন না : তথ্যমন্ত্রী

gmtnews

মন্তব্য করুণ

এই ওয়েবসাইটটি আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করতে কুকি ব্যবহার করে। আমরা ধরে নিচ্ছি যে আপনি এটির সাথে ঠিক আছেন, তবে আপনি ইচ্ছা করলেই অপ্ট আউট করতে পারেন। স্বীকার করুন বিস্তারিত